Study Destination

South Korea

উচ্চ শিক্ষার জন্য কেন দক্ষিণ কোরিয়াতে যাবেন?
দক্ষিণ কোরিয়া-এশিয়ার শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধশালি দেশ। দেশটি World Economy – তে একটি শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। আগামী ২০২৫ সাল নাগাদ কোরিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে প্রতিবছর কমপক্ষে ২,৫০,০০০ বিদেশী ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনার জন্য সুযোগ পাবে। এছাড়াও কোরিয়াতে :

(১) বিশ্বমানের পড়াশোনা হলেও, লেখা-পড়ার খরচ খুবই কম।

(২) বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য রয়েছে ১০০% পর্যন্ত স্কলারশীপ নিয়ে পড়াশোনা করে উন্নত ক্যারিয়ার গড়ার বিশাল সুযোগ।

(৩) ভিসার সম্ভাবনা প্রায় ৯৯%।

(৪) পড়াশোনার পাশাপাশি বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীরা পার্ট-টাইম কাজ করে তাদের পড়াশোনার খরচ সহজেই বহন করতে পারবে।

(৫)পড়াশোনার মাধ্যম সম্পূর্ন ইংরেজতে।

(৬) ছাত্র-ছাত্রীরা ক্লাস টাইমে সপ্তাহে ২০/৩০ ঘন্টা এবং ভ্যাকেশনে ফুল টাইম জব করতে পারে।

(৭) ক্লাস টাইমে, পার্ট টাইম জব করে ছাত্র-ছাত্রীরা মাসে কমপক্ষে ১০০০/১২০০ ডলার আয় করতে পারে।

(৮) থাকা-খাওয়ার খরচ মাসে ১৫,০০০/ ২০,০০০ টাকা।

(৯) কোরিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বেশীর ভাগই আমেরিকান বা ইউরোপিয়ান অথবা আমেরিকান বা ইউরোপিয়ান বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশকরা।

(১০) আমেরিকা/ ইউরোপের বিভিন্ন নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রেডিট ট্রান্সফার করে পড়াশোনার সুযোগ।

(১১) ব্যচেলর বা মাস্টার্স শেষ করার পরে প্রত্যেক বিদেশী ছাত্র-ছাত্রী  ৩ বৎসর পর্যন্ত জব সার্চ (Job Search D-10) ভিসা পেতে পারে এই ৩ বৎসরে বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীরা কমপক্ষে ৫০/৬০ লক্ষ টাকা আয় করতে পারে।

(১২) পাঁচ বৎসর পরে বিদেশী ছাত্র-ছাত্রীরা PR (Permanent Resident) এর জন্য আবেদন করতে পারবে।

(১৩) পড়াশোনা করা অবস্থায় স্বামী/ স্ত্রী কে স্পাউস ভিসার মাধ্যমে কোরিয়াতে নেওয়া যায়।

(১৪) পড়াশোনা শেষ করে কোরিয়াতে বৈধ ভাবে চাকুরী নিয়ে থাকা যায় এই সমস্ত কারনে প্রতি বছর প্রচুর ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা ও ক্যারিয়ার গড়ার জন্য কোরিয়াতে গমন করে।

;